সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১ আশ্বিন ১৪২৯

এক হাজার গার্মেন্টস চলতি বছরে বন্ধ হতে পারে

চলতি বছরের শেষের দিকে অর্থাৎ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রায় এক হাজার গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে ১০ লাখের বেশি শ্রমিক চাকরি হারাবে।
অর্থনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, সরকার ও দাতা প্রতিষ্ঠানের নানা সহযোগিতা নিয়েও কারখানার মালিকরা শ্রমিক ছাঁটাই করার সিদ্ধান্তে অটল। ৩০ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ উন্মুক্ত রাখা হয়েছে তাদের জন্য। সরকারের প্রণোদনার অর্থ থেকে এখন শ্রমিকদের মজুরি দেওয়া হচ্ছে। 

বিকেএমইএর জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, ‘বিদ্যমান পরিস্থিতিতে আগামী কয়েক মাসে গার্মেন্টের প্রায় ২৫ শতাংশ শ্রমিক ছাঁটাই হবে। কারণ কারখানায় কাজ না থাকলে মালিকদের পক্ষে শ্রমিকদের বেতন-ভাতা চালিয়ে নেওয়া কঠিন হবে। বর্তমানে পোশাক খাতে ৩৫ থেকে ৪০ লাখ শ্রমিক কাজ করছে। সে হিসাবে ছাঁটাইয়ের কবলে পড়তে পারে আট থেকে ১০ লাখ শ্রমিক।
গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার বলেন, ‘আমাদের কাছে থাকা তথ্য অনুযায়ী ইতিমধ্যে অন্তত ৭০ হাজার শ্রমিক ছাঁটাইয়ের শিকার হয়েছে।’
কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর (ডিআইএফই) সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে প্রায় ১৮ হাজার শ্রমিক ছাঁটাই হওয়ার খবর তাদের কাছে রয়েছে। অবশ্য শ্রমিক সংগঠনগুলোর হিসাবে এই সংখ্যা অনেক বেশি। ছাঁটাইয়ের এই ধারা আগামী কয়েক মাস অব্যাহত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) সংক্রমণের প্রভাবে দেশে তৈরি পোশাক শিল্প সুরক্ষায় শুরুতেই নানা উদ্যোগ নেয় সরকার।