শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯

গাজীপুরে শিশু অপহরণঃ ৫ দিন পর মিলল লাশ

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ির  হরিণাচালা থেকে অপহরণের ৫ দিন পর নিজ বাড়ির গোডাউন থেকে আলিফ হোসেন (৬) নামে এক শিশুর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার ক‌রে‌ছে র‌্যাব-১। এ ঘটনায় জ‌ড়িত স‌ন্দে‌হে সাগর নামে এক অপহরণকারিকে আটক করা হ‌য়ে‌ছে। শনিবার (২ মে) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কোনাবাড়ির পারিজাত হরিণাচালা এলাকার এক ঝুটের গোডাউন থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আলিফ হোসেন ওই এলাকার ঝুট ব্যবসায়ী মো. ফরহাদের ছেলে বলে জানা গেছে।

নিহত আলিফের মামা নাসিম বলেন, গত ২৭ এপ্রিল বিকেল ৩টার দিকে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়েছিলেন আলিফ।

নিহ‌তের বাবা ফরহাদ হো‌সেন জানান, ছেলে নিখোঁজের পর তি‌নি কাশিমপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। পরে ফোন করে অপহরণকারীরা মুক্তিপণ বাবদ ১৫ লাখ টাকা দাবি করে। এরপর র‌্যাব-১ এর গাজীপুরের পোড়াবাড়ি ক্যাম্পে অভিযোগ করা হয়। পরে বাধ্য হয়ে মুক্তিপণের টাকা দিতে চাইলে টঙ্গীসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরিয়ে পুবাইল এলাকার একটি রেল লাইনে টাকা রাখতে বলে অপহরণকারিরা। সেখানে একটি ব্যাগে ১৫ লাখ টাকা রেখে ওঁৎ পেতে ছিলেন র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। পরে সাগর নামে একজনকে আটক করে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ফরহাদের চার তলা বাড়ির তিন তলার ঝুটের গোডাউন থেকে আলিফের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। সাগরসহ কয়েকজন ফরহাদের বাড়ির তিন তলাতে ঝুটের গোডাউনের পাশের ইউনিটে ভাড়া থাকতো। আর দোতলায় পরিবার নিয়ে বসবাস করেন বাড়ির মালিক ফরহাদ। কাশিমপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর হোসেন জানান, সম্প্রতি একটি বিষয়ে সালিশ করতে গিয়ে বাড়িওয়ালা ফরহাদ ভাড়াটিয়া সাগরকে চড়থাপ্পড় মেরেছিলেন। রাগের কারণে তারা ফরহাদের ছেলেকে অপহরণ করেছে বলে সাগর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। কারা এ ঘটনায় জড়িত তা সাগরকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।