টিসিবির তেলে কারসাজি, সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে রিমান্ড নিতে আবেদন

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) থেকে উত্তোলন করা সয়াবিন তেল কালোবাজারে বিক্রির দায়ে গ্রেফতার মোহাম্মদপুর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আইনুল ইসলামের বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

রোববার (১০ মে) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় তেলে কারসাজির ঘটনায় মোহাম্মদপুর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তার বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুল ইসলামের আদালতে এ রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার (৮ মে) বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে রাজধানীর মোহাম্মদপুর বিজলী মহল্লা থেকে ১২০ লিটার তেল জব্দসহ আইনুলকে আটক করে র‌্যাব-২ এর একটি দল। পরের দিন শনিবার (৯ মে) তার বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়।

জানা যায়, ‘সিরাজ এন্টারপ্রাইজ’ নামের এক ডিলার টিসিবি থেকে ছয় হাজার লিটার তেল সংগ্রহ করে। এসব তেল ট্রাকের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মাঝে ন্যায্য মূল্যে বিক্রির কথা ছিল। কিন্তু উত্তোলন করে এসব সয়াবিন তেল কালোবাজারে বিক্রি করেন আইনুল।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল বিষয়টি জানতে পেরে অভিযানে নামে। পরে ১২০ লিটার সয়াবিন তেলসহ আইনুলকে গ্রেফতার করে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, মোহাম্মদপুরে সাধারণ মানুষের মাঝে ন্যায্য মূল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রির জন্য লাইসেন্সটি ছিল সিরাজুল ইসলামের নামে। তিনি মারা যাওয়ার পর তার ছেলে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আইনুল সেই লাইসেন্সে ব্যবসা করছেন। সরকারি বিভিন্ন পণ্য ট্রাকের মাধ্যমে বিক্রি করার কথা থাকলেও প্রতিষ্ঠানটি প্রায় তা করত না। বেশি লাভের আশায় এসব পণ্য কালোবাজারে বিক্রি করত। এমন খবরে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব তাকে আটক করে।

র‌্যাব-২ এর স্পেশাল কোম্পানি কমান্ডার এসপি মহিউদ্দিন ফারুকী বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আইনুল ইসলাম নামে একজনকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে ১২০ লিটার তেল উদ্ধার করা হয়েছে।