শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯

ঢাকা ফেরত পুলিশ দম্পতির করোনা শনাক্ত

কুষ্টিয়ায় এবার ঢাকা ফেরত এক পুলিশ দম্পতির করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত ওই ব্যক্তি হলেন রমজান (৫০) ও তার স্ত্রী বিলকিচ (৪০)।

আক্রান্ত রমজান ঢাকায় ট্রাফিক পুলিশের এটিএসআই পদে কর্মরত বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার রাত ১০টায় কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম ঢাকা ফেরত এই পুলিশ দম্পতির করোনা শনাক্তের তথ্য নিশ্চিত করেন।

এদিকে খবর পেয়েই রাতেই উপজেলা প্রশাসন আক্রান্ত ওই ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছেন। আক্রান্ত ওই দম্পতি বর্তমানে বাড়িতেই অবস্থান করছেন।

সিভিল সার্জন জানান, আক্রান্ত পুলিশ সদস্য রমজানের বাড়ি দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের মধুগাড়ি গ্রামে। সোমবার (১১ এপ্রিল) ঢাকা থেকে তিনি স্ত্রী সন্তানসহ কুষ্টিয়ায় গ্রামের বাড়িতে ফেরার পর স্বাস্থ্য কর্মীরা এই দম্পতি ও তার এক সন্তানের নমুনা সংগ্রহ করেন। একই সাথে কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে মঙ্গলবার ১২ এপ্রিল ৫০ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। এদের মধ্যে এই পুলিশ দম্পতির করোনা পজিটিভ এসেছে। বাকি ৪৮টি নেগেটিভ এসেছে।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল দৌলতপুর উপজেলার রেফায়েতপুর ইউনিয়নের কাঘাটি গ্রামের ঢাকা ফেরত কাউসার ও সোনিয়া নামের আরও এক দম্পতির করোনা শনাক্ত হয়। এ উপজেলায় একের পর এক ঢাকা ফেরত দম্পতির করোনা আক্রান্তের ঘটনায় মানুষজনের মধ্যে চরম উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে।

এ নিয়ে কুষ্টিয়া জেলায় অদ্যাবধি ২২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হলো। সর্বাধিক দৌলতপুর উপজেলায় ৯ জন। এর মধ্যে ঢাকা ফেরত দম্পতির সংখ্যা ৩ জোড়া। এছাড়া, ভেড়ামারায় ২, মিরপুর ৪, কুষ্টিয়া সদর ১,কুমারখালী ৫ এবং খোকসা উপজেলায় একজন আক্রান্ত রোগী রয়েছেন।

এদিকে মঙ্গলবার মিরপুর উপজেলার দুইজন রোগী হোম আইসোলেশনে চিকিৎসা নিয়ে পরপর দুটি স্যাম্পলে করোনা নেগেটিভ আসায় সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন। এ নিয়ে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১১ জন।