মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯

ভারতে রাসায়নিক চুল্লি থেকে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে নিহত ১৩, অসুস্থ ৮০০

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের একটি রাসায়নিক কারখানা থেকে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে অন্তত ১৩জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও ৮০০ মানুষকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাতের বেলা লোকজন ঘুমিয়ে পড়লে অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তম শহরের পলিমার্স চুল্লি থেকে বিষাক্ত গ্যাস বেরিয়ে এলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

চিকিৎসকরা বলছেন, রোগীরা তাদের চোখে জ্বালাপোড়া ও শ্বাসকষ্টের মতো সমস্যার কথা বলেন। চুল্লির আশপাশের এলাকা খালি করে দেয়া হয়েছে। কর্মকর্তারা বলেন, অবহেলার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গ্যাস ছড়িয়ে পড়ার নিয়ন্ত্রণের প্রাথমিক চেষ্টা সফল হয়নি। কিন্তু সরকারি কর্মকর্তা ও কোম্পানি জানায়, পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণেই। এক বিবৃতিতে এলজি জানায়, দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে তারা তদন্ত করছে। আর আক্রান্তদের দ্রুত চিকিৎসা দেয়ার ব্যব্স্থারও আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

অন্ধ্র প্রদেশের দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা রাজেন্দ্র রেড্ডি বলেন, স্টাইরিন গ্যাস ছড়িয়ে পড়েছে, যা সচরাচর হিমায়িত থাকে। বুধবার স্থানীয় সময় রাত ৩টায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লকডাউন শিথিল করার পর গত ২৪ মার্চ কারখানাটি খুলে দেয়া হয়।

স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বিকে নাইক বলেন, হাসপাতালে ভর্তি সবার অবস্থা স্থিতিশীল। ৮৯ রোগীকে ভেন্টিলেটর দিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানান ডাক্তাররা। আহত অনেককেই হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। কোম্পানিটির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান শিল্পমন্ত্রী গৌতমি রেড্ডি।

দক্ষিণ কোরিয়ার মালিকানাধীন এই কোম্পানি সচল করার পর যথাযথ নির্দেশনা ও প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি বলে মনে হচ্ছে।