মির্জাপুরে আইসোলেশনে মৃত অন্তঃসত্ত্বার করোনা নেগেটিভ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী হাসপাতালে আইসোলেশনে মৃত অন্তঃসত্ত্বা নারী করোনা আক্রান্ত ছিলেন না। আজ সোমবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাকসুদা খানম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কুমুদিনী হাসপাতাল সূত্রমতে, শরীরে রক্তক্ষরণ নিয়ে গত বুধবার ছয় সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূ হাসপাতালে ভর্তি হন। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তাঁর শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয়। গত শুক্রবার সকাল থেকে তাঁর জ্বরসহ করোনা উপসর্গ দেখা দেয়। পরে রাতে তাঁকে আইসোলেশনে রাখা হয়। গত শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান। মৃত্যুর আগে ওই দিন সকালে ওই নারীর নমুনা সংগ্রহ করেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা। রাতে তাঁর লাশ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করে। এদিকে স্ত্রীর মৃত্যুর পর মুঠোফোনে ওই নারীর স্বামী অভিযোগ করে আসছিলেন, তাঁর স্ত্রীর ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাকসুদা খানম বলেন, ওই নারীর করোনা শনাক্ত হয়নি। তিনি অন্য কোনো কারণে মারা যেতে পারেন।
কুমুদিনী হাসপাতালের সহকারী পরিচালক এ বি এম আলী এহসান বলেন, গৃহবধূর শরীরে অস্ত্রোপচার ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ঠিকই ছিল। যেহেতু করোনা শনাক্ত হয়নি, তাই এয়ার অ্যাম্বুলিজমের মতো কোনো কারণে হয়তোবা তিনি মারা গেছেন।