শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

সুদবিহীন ঋণের সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার ঢাকা বারের

বিপাকে পড়া আইনজীবীদের বিনা সুদে ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্তের জন্য বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) জরুরি সভা ডেকেছেন ঢাকা আইনজীবী সমিতি (বার)। সভায় সিদ্ধান্তের পর থেকে আইনজীবীদের বিনা সুদে ঋণ দেয়া শুরু করবেন। তবে কত টাকা করে ঋণ দেয়া হবে সে বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। সে বিষয় সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছে বার কর্তৃপক্ষ। ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইকবাল হোসেন বুধবার (২৯ এপ্রিল) জাগো নিউজকে বলেন, আজকের মধ্যে আমাদের আবেদনগুলো যাচাই বাচাই শেষ হবে। বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আমরা জরুরি সভা ডেকেছি। সভায় সিদ্ধান্তের পর থেকে আমরা ঋণ দেয়া শুরু করবো। ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী খান হাসান বলেন, ঢাকা বারের সুদ বিহীন ঋণ নেয়ার জন্য অনেকে আবেদন করেছেন। বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) ঋণ দেয়ার বিষয়ে জরুরি সভা ডেকেছি। সভায় সিদ্ধান্ত হওয়ার পরই ঋণ দেয়া শুরু হবে। সদস্য প্রতি কত টাকা হারে ঋণ দেবেন এমন প্রশ্নে হোসেন আলী খান হাসান বলেন, আপাতত তা বলা যাচ্ছে না। আমরা সবাই মিলে সভায় সিদ্ধান্ত নেব।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) কার্যনির্বাহী কমিটির সভা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ই-মেইলে পাঠানো আবেদনগুলো ডাউনলোড করে প্রিন্ট ও মেম্বারশিপ নম্বর অনুযায়ী বান্ডিল প্রস্তুত না হওয়ায় সভা স্থগিত করা হয়। এরপর সভা পরের দিন শুক্রবার (২৪) হবে বলে জানান কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা। কিন্তু ওইদিন সভার জন্য অনেকে উপস্থিত হলেও আবেদনগুলো ডাউনলোড করে প্রিন্ট ও মেম্বারশিপ নম্বর অনুযায়ী প্রস্তুত না হওয়ায় এক সাপ্তাহের সময় নেয় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে ২৪ মার্চ থেকে দেশের সব আদালত বন্ধ। এদিকে ঢাকা বারে ২৫ হাজার ২০৯ জন তালিকাভুক্ত সদস্য রয়েছেন। করোনায় বিপাকে পড়া আইনজীবীদের বিনা সুদে দুই বছর মেয়াদি ঋণ দিতে কার্যনির্বাহী কমিটিতে সিদ্ধান্ত হয় গত ১৩ এপ্রিল। ২০ এপ্রিল ছিল আবেদনের শেষ দিন। এদিন পর্যন্ত ঋণ নেয়ার জন্য আবেদন করেছেন সাত হাজার ৫১১ জন তালিকাভুক্ত আইনজীবী। তবে অনেকে একাধিকবার ই-মেইল করেছেন। তাই আবেদনের সংখ্যা কিছুটা কমবে।