বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭

হাঁটু ও কনুইয়ের কালচে দাগ দূর করার উপায়

নিজস্ব সংবাদদাতা : অনেকেই হাঁটু ও কনুইয়ের ত্বক কালচে হওয়ার সমস্যায় ভোগেন। পায়ের গোড়ালির উপরেও অনেক সময় এ সমস্যা দেখা যায়। নানা ধরনের ক্রিম-লোশন ব্যবহার করেও এ সমস্যা থেকে পুরোপুরি মুক্তি পাওয়া যায় না।

বিভিন্ন কারণে এরকম দাগ হতে পারে। যেমন- ত্বকের ওই অংশ মোটা হয়ে গেলে কিংবা শুষ্ক হয়ে গেলে এরকম দাগ দেখা দেয়। তাছাড়া অনেক সময় কনুইয়ে ভর দিয়ে কাজ করলে, ফ্লোরে হাঁটু গেড়ে বসার অভ্যাস থাকলেও হাঁটুতে দাগ হয়ে যায়। এই দাগগুলো দূর করতে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-

লেবুর রস : চিনি ও লেবুর রস মিশিয়ে ৫-৭ মিনিট ম্যাসাজ করে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ত্বকে স্ক্রাবারের কাজ করে মরা চামড়া দূর করবে। পাশপাশি ত্বক উজ্জ্বলও করবে। এছাড়া ১ টেবিল চামচ লেবুর রস, ১ টেবিল চামচ নারকেল তেলের একটি মিশ্রণ তৈরি করে ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে পারেন। এতে ত্বকের কালো দাগ দূর হবে।

দই : টকদই, মুসুর ডাল, লেবুর রস, চালের গুঁড়া একসঙ্গে মিশিয়ে মিশ্রণটি দিয়ে কনুই ও হাঁটুতে ম্যাসাজ করে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে নিন। এরপর এতে ময়েশ্চরাইজার লাগান। এতে ত্বকের কালো দাগ কমে আসবে। সেই সঙ্গে হাঁটু-কনুইয়ের ত্বক বেশ উজ্জ্বল দেখাবে।

দইয়ের সঙ্গে ভিনিগারের মিশ্রণও ম্যাজিকের মতো কাজ করে। কালো অংশে মিশ্রণটি লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে এলে ধুয়ে ফেলুন। বেশ কয়েকদিন ব্যবহার করলে কালো দাগ দূর হবে।

দুধ : দুধের সঙ্গে ১ চা চামচ বেকিং সোডা মেশান। মিশ্রণটি ৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২-৩বার করলে উপকার পাবেন।

ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে গোসলের আগে হাঁটু ও কনুইয়ে নারকেল তেল ম্যাসাজ করুন। ২ ফোঁটা লেবুর রসও দিতে পারেন। পরে গরম পানি দিয়ে গোসল করে নিন। কয়েক দিনের মধ্যেই এতে ভালো ফল পাওয়া যাবে। শুষ্ক ত্বকের সমস্যা কমাতে অ্যালোভেরা জেলও বেশ উপকারী। একটা কৌটোতে অ্যালাভেরা জেল ভরে ফ্রিজে রাখুন। গোসলের পর লাগিয়ে নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *