মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯

১২ শর্ত মেনে ৭ মে থেকে মসজিদে জামায়াতে নামাজ আদায়ের সিদ্ধান্ত দিলেন ধর্ম মন্ত্রনালয়

শর্ত সাপেক্ষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৭ মে) থেকে রাজধানীসহ সারাদেশে মসজিদগুলোতে জামাতে ৫ ওয়াক্ত নামাজ  পড়া যাবে। জোহর থেকে মুসল্লিরা মসজিদে জামাতে নামাজ পড়তে যেতে পারবেন। আজ বুধবার (৬ মে), ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শর্ত সাপেক্ষে আগামী বৃহস্পতিবার যোহর থেকে মুসল্লিগণ মসজিদে নামাজ পড়তে পারবেন। দেশের শীর্ষ স্থানীয় আলেম ওলামাদের সাথে পরামর্শ করে আগামীকাল ৭ মে থেকে নিন্মবর্ণিত শর্ত সাপেক্ষে সুস্থ্য শরীরে মুসল্লিগণদের মসজিদে গিয়ে জামায়াতের সাথে নামাজ পড়ার অনুমতি দেয়া হলো। 

শর্তগুলো হলো- 

১. মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবেনা। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পূর্বে সম্পূর্ণ মসজিদ জীবাণুনাশক দ্বারা পরিস্কার করতে হবে। মুসল্লিগণ প্রত্যেকে নিজ নিজ দায়িত্বে জায়নামাজ নিয়ে আসবেন।

২. মসজিদের প্রবেশমুখে হ্যান্ড স্যানিটাইজার/ সাবানসহ হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে। অবশ্যই মুসল্লিগণ প্রত্যেককে মাস্ক পড়ে মসজিদে আসতে হবে।

৩. প্রত্যেককে নিজ নিজ বাসা থেকে অজু করে সুন্নত নামাজ পড়ে আসতে হবে। অজু করার সময়য় ২০ সেকেন্ড কমপক্ষে সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে।

৪. মসজিদে কাতারে নামাযে দাড়ানোর সময় অবশ্যই ৩ ফুট দুরুত্ব বজায় রেখে দাঁড়াতে হবে।

৫. এক কাতার অন্তর অন্তর কাতার করতে হবে।

৬. শিশু, বয়োবৃদ্ধ, অসুস্থ্য ব্যক্তি জামায়াতে অংশ নিতে পারবেন না।

৭. মসজিদে সেহেরি ও ইফতারের আয়োজন করা যাবেনা।

৮. সর্বসাধারণের সুরক্ষা নিশ্চিত করে,স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ,স্থানীয় প্রশাসন এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নির্দেশ মেনে চলতে হবে।

৯. সংক্রমণ রোধে মসজিদের অজুখানায় সাবান/ স্যানিটাইজার রাখতে হবে। মসজিদের সংরক্ষিত জায়নামাজ বা টুপি ব্যবহার করা যাবে না।

১০. উল্লিখিত শর্ত পালন সাপেক্ষে প্রত্যেক মসজিদে সর্বোচ্চ পাঁচজন ইত্তেকাফ এর জন্য অবস্থান করতে পারবেন।

১১.করোনা ভাইরাস মহামারী থেকে রক্ষা পেতে নামাজ শেষে মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে দোয়া করার জন্য খতিব, ইমাম এবং মসজিদ কমিটির কাছে অনুরোধ করা যাচ্ছে।

১২.খতিব, ইমাম এবং মসজিদ কমিটি বিষয়গুলো বাস্তবায়ন করবেন।    

উল্লেখ্য, গত ২৩ এপ্রিল থেকে ঘরে থেকেই নামাজ আদায় করার নির্দেশ দেয়া হয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে।