বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭

কঠিন বিপদের মুখে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট

নিজস্ব সংবাদদাতা : কঠিন বিপদের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট। দেশটির স্পোর্টস কনফেডারেশন ও অলিম্পিক বডি সম্মিলিতভাবে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা বা দেশটির ক্রিকেট বোর্ডকে আপাতত স্থগিত করেছে। ক্রিকেট বোর্ডের নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার সরকার। এ কারণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধও হতে পারে প্রোটিয়া ক্রিকেট সংস্থা।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, কোনো দেশের ক্রিকেট বোর্ডে সরকার হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। ক্রিকেট বোর্ড থাকবে স্বতন্ত্র। নিয়মের ব্যতিক্রম হলে আইসিসি থেকে নিষিদ্ধ হতে পারে সদস্যভুক্ত দলটি।

দক্ষিণ আফ্রিকার স্পোর্টস কনফেডারেশন ও অলিম্পিক কমিটি যৌথভাবে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডকে চিঠি দিয়েছে বলে জানায় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজ। চিঠিতে বোর্ডের শীর্ষ কর্তাদের দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে। বোর্ডের কর্তারা দীর্ঘদিন ধরে দুর্নীতি করে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে; যার জন্য দেশটির মানুষ ও ক্রিকেটাররা বোর্ডের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে বলে জানায় স্পোর্টস ফেডারেশন ও অলিম্পিক কমিটি।

চিঠিতে লেখা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ডের কর্তাদের কাজকর্ম ঠিকঠাক নয়। বিভিন্ন অনিয়িম ও দুর্নীতির কারণে দেশের মানুষ ও স্পন্সর এমনকি সংগঠনগুলোও বোর্ডের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। তাই বোর্ডের কর্তাদের অব্যাহতি দিয়ে হলো। অচিরেই বোর্ডের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আসা অভিযোগের তদন্ত করবে স্পোর্টস ফেডারেশন ও অলিম্পিক বডি।

তবে চিঠি পেয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেননি দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ডের কর্মকর্তারা। এমনকি চিঠির জবাবও দেননি কেউ।

এর আগে বর্ণবাদের কারণে ২১ বছর (১৯৭০ থেকে ১৯৯১ সালের নভেম্বর) আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *